নিজের মধ্যে অহংকার থাকলে সমাজের জন্যে কিছুই করতে পারবেন না …….. জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান।

ইফতার মাহফিল-২০১৯ দেশের সকল প্রান্তে রক্তদানের চাহিদা পূরন করতে অাপনাদের চেষ্টাকে ধরে রাখতে হবে …….সিভিল সার্জন ডাঃ এ কে এম মাহবুবুর রহমান
December 5, 2019
শ্রেষ্ঠ রক্তদাতা সংগঠন “অনুসন্ধানী রক্তদান সংস্থা বাংলাদেশ”কে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান
December 5, 2019

‘রক্ত ঋণ,   রক্ত দিন’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে পথচলা অনুসন্ধানী রক্তদান সংস্থার ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৩য় বর্ষে পর্দাপন উপলক্ষ্যে চাঁদপুরে দিনব্যাপি স্বেচ্ছাসেবী মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৬ নভেম্বর শনিবার শহরের প্রেসক্লাবের দ্বিতীয় তলায় এলিট চাইনিজ রেষ্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারে আন্দঘন ও উৎসবমূখর পরিবেশে এই আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থানরত সংস্থাটির প্রায় ৪৭ টি ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবী প্রতিনিধিরা অংশগ্রহন করেন। সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান। সংস্থার চেয়ারম্যান বিএম হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে এবং প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপক মু. শহীদ উল্যাহ্ বাবর এর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর সরকারী কলেজ প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগী প্রধান শওকত ইকবাল ফারুকী, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. কামরুল হাসান, সমাজসেবক লায়ন মাহমুদ হাসান খান, সাহিত্য মঞ্চের সভাপতি মাইনুল ইসলাম মানিক অনুষ্ঠান উযাপন কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ্ আল-নোমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আফজাল হোসেন মারুফ, ঢাকা মহানগর সমন্বয়কারি প্রান্ত সাহা নয়ন, শরিয়তপুর ইউনিট পরিচালক শরীফুল ইসলাম ইয়ামন, কবি ও সাংবাদিক আশিক বিন রহিম, সংস্থার সদস্য লেখক গোলাম রাব্বানী, মোস্তাহিল গালিব, নবনীতা রায় চৌধুরী প্রমুখ।

জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান তার বক্তব্যে বলেন, সমগ্র পৃথিবীতে একজ মানুষের মতো আর একজন নেই। এটি সৃষ্টির আজব রহস্য। আমরা যখন চিন্তা করি তখন বর্তমানে থাকি না। থাকি অতিত কিংবা ভবিষ্যতে। বর্তমানে আমরা সর্বোচ্চ ৬ সেকেন্ড থাকতে পারি। আমরা সবসময় অতিত আর ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবি। তখন আমাদের সাথে যুক্ত হয়, মন বা মাইন্ড। যাকে আমরা কখনোই দেখি না।

তিনি বলেন, পৃথিবীতে আমরা একবাইর এসেছি, আমাদের আর দ্বিতীয় বার আসার সুযোগ নাই। পৃথিবীতে আপনি শুধু শাশ্বত কালের সঙ্গী মাত্র। তাই জীবনে এমন কিছু কাজ করে যেতে হবে, যে কাজের বিনিময়ে আপনি মরেও বেঁচে থাকবেন। একজন মানু্ষ দীর্ঘসময় সিনেমা দেখার বা বই পড়ার সময় হাঠাৎ কাঁদতে থাকে। কে তাকে কাঁদিয়েছে সেটি সবাই ধরতে পারে না, যে পারে সেই সফল। তিনি আরও বলেন, পৃথিবীর সত্য জানাটা আমাদের সকলের খুব জরুরী। বেশি কল্পনা করার দরকার নাই। নিজের মধ্যে অহংকার থাকলে সমাজের জন্যে কিছুই করতে পারবেন না। অহংকার আগে ত্যাগ করতে হবে। আসুন আমরা সবাই এই সমাজ গড়ে তুলি। অনুষ্ঠানে অনুসন্ধানী রক্তদান সংস্থার শুভাকাঙ্খী, রক্তদাতা এবং সকল ইউনিট এর স্বেচ্ছাসেবী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ: ‘রক্ত ঋণ, রক্ত দিন’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৭ সালে চাঁদপুর সরকারী কলেজ প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের এক ঝাঁক তরুন ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে যাত্র শুরু করে অনুসন্ধনী রক্তদান সংস্থা বাংলাদেশ নামক সংস্থাটি। প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে মাত্র ২বছরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ২৯৯০ ব্যাগ রক্তদানে সক্ষম হয়েছে সংস্থাটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *